• No products in the cart.

লাভজনক কৃষি ব্যবসা আইডিয়া জেনে নিন (নিজেই শুরু করতে পারবেন)

স্বাবলম্বী হবার জন্য বিভিন্ন কৃষি ব্যবসা বেশ ভালো একটি উপায়। আমাদের দেশের মাটি বেশ উর্বর হওয়ায় সহজেই কৃষি পণ্যের ব্যবসা থেকে লাভবান হওয়া সম্ভব। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই পরিকল্পনা নিয়ে আগানো উচিত। কৃষি ব্যবসার ক্ষেত্রে বাজারের চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন কৃষি পণ্য চাষ করা উচিত। বাজার প্রতিদিনই পরিবর্তিত হচ্ছে। কাজেই কৃষি ব্যবসার ক্ষেত্রে বাজারের এই পরিবর্তনকে বুঝে এরপর আগাতে হয়। কৃষি ব্যবসা করে সফলতা পেতে হলে অবশ্যই এই ব্যাপারে সঠিক জ্ঞান রাখা জরুরি।

আজকের পোস্টে আমরা বিভিন্ন ধরণের কৃষি পণ্যের ব্যবসা নিয়ে আলোচনা করবো। এখান থেকে ধারণা নিয়ে আরও গবেষণার মাধ্যমে ব্যবসা শুরু করে আপনি সফলতা লাভ করতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে মাথায় রাখতে হবে আপনার এলাকা বা জমিতে কোন কৃষিজ পণ্য সবথেকে ভালো ফলে। কেননা প্রতিটি এলাকার ক্ষেত্রেই এই পণ্য ভিন্ন হতে পারে। কাজেই বাজারের চাহিদা অনুযায়ী সেই পণ্য নিয়েই ব্যবসার পরিকল্পনা করা উচিত।

সালাদজাতীয় কৃষিজ পণ্য

বর্তমানে দেশের বিভিন্ন স্থানে রেস্টুরেন্টের সংখ্যা বাড়ছে। ভালো ও আধুনিক রেস্টুরেন্টের ক্ষেত্রে বিভিন্ন সালাদজাতীয় কৃষিজ পণ্যের বেশ চাহিদা রয়েছে। ফাস্ট ফুড বা অন্য দেশের বিভিন্ন খাবার তৈরির ক্ষেত্রে লেটুস পাতা, ক্যাপ্সিকাম ইত্যাদি সবজির বেশ চাহিদা রয়েছে। আমাদের দেশে এসব কৃষিজ পণ্য এখনও খুব বেশি প্রসার লাভ করে নি। কাজেই বড় একটি অংশ বাইরের দেশ থেকে আমদানি করা হয়ে থাকে। এসব সালাদজাতীয় বিভিন্ন কৃষি পণ্য নিয়ে আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারেন। নিজের জমিতে যদি এসব ফলন ভালো হয়ে থাকে তবে নিজেই উৎপাদন করে তা শহরের বিভিন্ন রেস্টুরেন্টগুলোতে সরবরাহ শুরু করতে পারেন। এছাড়া সরাসরি মাঠ পর্যায় থেকেও সরবরাহ করতে পারেন রেস্টুরেন্টগুলোর কাছে।

কৃষি খামার

নিজের পর্যাপ্ত ও উপযুক্ত জমি থাকলে সহজেই নিজেই কৃষি খামার তৈরি করতে পারেন। তবে কৃষি খামারের সঠিক যত্ন নিতে অবশ্যই অভিজ্ঞতাসম্পন্ন লোকবল দরকার। কাজেই একটি নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়ে আপনি খামার শুরু করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি আপনার এলাকা, আবহাওয়া সব মিলিয়েই প্রথমে জেনে নিন কোন কোন কৃষিজ পণ্যের ফলন এখানে ভালো হয়। সে অনুযায়ী আপনি সবজি, ফল বা ফুলের চাষ করতে পারেন। মনে রাখতে হবে ফলন ভালো হবার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞ হাতের পরিচর্যার দরকার।

খামার হতে উৎপাদিত পণ্য আপনি সহজেই বড় শহরগুলোতে সরাসরি বিক্রি করতে পারেন। এতে করে ভালো লাভ করা সম্ভব। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই লাভের পরিমাণ নির্ভর করে আপনি কতটা পরিকল্পনামাফিক সকল কিছু নিয়ন্ত্রন করছেন। কাজেই একটি পরিষ্কার পরিকল্পনা নিয়ে তবেই এই কাজ শুরু করা উচিত।

গ্রাস কার্পেট

সড গ্রাস বা গ্রাস কার্পেট নামে পরিচিত এই কার্পেট খেলাধুলার ক্ষেত্রে বহুল প্রচলিত। বিশেষ করে খেলার মাঠে এই ধরণের কার্পেট দেয়া হয়ে থাকে। এছাড়াও অনেক ধরণের ব্যবহার আছে এই ঘাসের কার্পেটের। যদি আপনার অনেক পরিমাণ জমি থাকে তবে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এটি বাইরের দেশে রপ্তানি করে বিপুল পরিমাণ আয় করা সম্ভব কেননা এটি খুবই চাহিদাপূর্ণ একটি বাজার। যদি সফলভাবে পরিকল্পনা নিয়ে এগোনো যায় তবে এটি খুবই আকর্ষণীয় একটি কৃষি ব্যবসা হতে পারে।

অর্গানিক খামার

অর্গানিক বা প্রাকৃতিক ভাবে উৎপন্ন ফসল ও ফলের চাহিদা বেড়ে চলছে দিন দিন। স্বাস্থ্যকর খাবার হিসেবে অর্গানিক ফসল ও ফলের বিকল্প নেই। বিভিন্ন সার ও রাসায়নিক ব্যবহার করে করা ফলনের দিক থেকে অনেকেই চোখ ফিরিয়ে এই প্রাকৃতিক ফলনের দিকে নজর দিচ্ছেন। বিভিন্ন রেস্টুরেন্টেও অর্গানিক খাবারের আলাদা চাহিদা দেখা যাচ্ছে। কাজেই এটি ভবিষ্যতে আরও বড় হবে সেটি সহজেই অনুমেয়। ফলে অর্গানিক ফসল ও ফল চাষের দিকে নজর দেয়া যেতে পারে। দিনে দিনে চাহিদা বাড়ায় এখান থেকে সহজে বিপুল পরিমাণ আয় করা সম্ভব। এছাড়া সাধারণ ফসলের থেকে অর্গানিক ফসলের দামও বেশি পাওয়া যায়। কাজেই এটি একটি ভালো কৃষি ব্যবসা হতে পারে ভবিষ্যতের জন্য।

ঔষধি ফসলের খামার

বিভিন্ন গাছ ও লতাপাতা ব্যবহার হয় ঔষধ বানানো বা বিভিন্ন ধরণের বিউটি কেয়ার প্রোডাক্ট তৈরিতে। এসব লতাপাতা ও গাছের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে বাজারে। এগুলো স্বাস্থ্যের জন্য ভালো বলে অনেকে আলাদা করে এগুলো কিনে থাকেন। এসব গাছ ও লতাপাতার দামও বেশ ভালো। ফলে সহজেই এই ধরণের ঔষধি লতাপাতার চাষ করে ভালো আয় করা সম্ভব। এক্ষেত্রেও পর্যাপ্ত জ্ঞান ও প্রয়োজনীয় পরিকল্পনার দরকার। ঔষধি ফলনের চাহিদাও দিনে দিনে বেড়ে চলেছে। তাই এখনই সঠিক সময় এই ধরণের খামার তৈরি করে ব্যবসা শুরু করার।

ফুলের চাষ

বর্তমানে আরও একটি চাহিদাসম্পন্ন বাজার হচ্ছে বিভিন্ন ধরণের ফুলের বাজার। বিভিন্ন উৎসব, অনুষ্ঠান ও বিশেষ দিন ছাড়াও সাধারণ দিনগুলোতেও ফুলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। দরকার সঠিকভাবে ফুলের বাজারজাতকরণ। কেননা ফুল দ্রুতই শুকিয়ে সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। কাজেই চাহিদা অনুযায়ী সঠিক সময়ে ফুলের উৎপাদন করা ছাড়াও দ্রুত তা বাজারজাতকরণ জরুরি। এক্ষেত্রে ব্যাপক চাহিদা আছে এমন ধরণের ফুল চাষের দিকে নজর দেয়া যেতে পারে। যেমনঃ গোলাপ, ল্যাভেন্ডার, রজনীগন্ধা, গাঁদা ইত্যাদি বিভিন্ন ধরণের ফুল। সঠিক পরিকল্পনা ও বাজারজাতকরনের মাধ্যমে এখানে সহজেই সফল ব্যবসা করা সম্ভব।

নার্সারি

নার্সারি বা বিভিন্ন রকমের গাছের চারা বিক্রির দিকেও নজর দেয়া যেতে পারে। বর্তমানে টবের চারাগাছ ছাড়াও সাধারণ বিভিন্ন ধরণের ফুল, ফল ও সবজির চারা গাছের ব্যাপক চাহিদা দেখা যাচ্ছে। ফলে নিজের নার্সারি তৈরি করে এই ধরণের চারাগাছ বিক্রি করা যেতে পারে সহজেই। টবে এজন্য গাছের সঠিক পরিচর্যা দরকার। কাজেই অভিজ্ঞ লোকবল নিয়োগের মাধ্যমে এই ধরণের ব্যবসা করা যেতে পারে। এক্ষেত্রে নিয়মিত পরিচর্যার দরকার থাকে বলে সঠিকভাবে পরিকল্পনা নিয়ে না এগোলে ব্যর্থ হবার সম্ভাবনা থাকে। কাজেই এখানেও সঠিক লোকবল ও পরিকল্পনা জরুরি।

মাশরুম চাষ

মাশরুম ধীরে ধীরে অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে খাদ্যপণ্য হিসেবে। মাশরুম স্বাস্থ্যকর একটি খাবার বলে এটি বর্তমানে শুধু রেস্টুরেন্টগুলোতে নয়, সাধারণ গৃহস্থালির খাবার হিসেবেও জনপ্রিয়। কাজেই মাশরুমের ব্যাপক চাহিদাসম্পন্ন এই বাজারে ভালো ব্যবসার সুযোগ রয়েছে। ঘরের মধ্যেই মাশরুম চাষ করা সম্ভব। মাশুরুমের অনেক ধরণ রয়েছে। বাজারে কোন মাশরুমের বেশি চাহিদা সেটি নিয়ে জেনে সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে মাশরুম চাষ করা শুরু করা যেতে পারে। মাশরুম চাষ অন্যান্য ফসল ও ফল চাষ থেকে সহজ হওয়ায় আপনি সহজেই এখানে দক্ষ হয়ে উঠতে পারেন। কাজেই অনেকেই এখন এই ব্যবসার দিকে ঝুঁকছেন।

সূর্যমুখী চাষ

সূর্যমুখী একটি ব্যাপক লাভজনক ফুল। এই ফুল থেকেই তেল তৈরি হয় এবং এটি খুব কম সময়েই বেড়ে ওঠে। ফলে সঠিক পরিকল্পনার মাধ্যমে সূর্যমুখী ফুলের চাষে ব্যাপক সাফল্য লাভ করা সম্ভব। এটি বর্ষাকালেও চাষ করা যায় বলে অনেকেই সূর্যমুখী ফুলের চাষে আগ্রহী হন। বাজারে ব্যাপক চাহিদা থাকায় এই চাষে সহজেই সাফল্য পাওয়া যেতে পারে। দরকার সঠিক পরিকল্পনা ও পরিচর্যার।

👉 অফলাইনে আয় করার কিছু লাভজনক উপায়

উপরে উল্লিখিত বিভিন্ন কৃষি ব্যবসা ছাড়াও আরও অনেক ধরণের কৃষি ব্যবসা এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আপনার এলাকা ও আপনার বাজার সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান রেখে ও গবেষণার মাধ্যমে সঠিক কৃষি ব্যবসা করে সহজেই সাবলম্বি হওয়া সম্ভব। কৃষি ব্যবসার ক্ষেত্রে সঠিক পরিকল্পনা ও বাজারজাতকরণ অত্যন্ত জরুরি। এই ব্যবসার সাফল্য নির্ভর করে এই গুরুত্বপূর্ণ দুটি বিষয়ের উপর। কাজেই পরিকল্পনা ঠিক করে তবেই কৃষি ব্যবসা শুরু করা উচিত।

 

0 responses on "লাভজনক কৃষি ব্যবসা আইডিয়া জেনে নিন (নিজেই শুরু করতে পারবেন)"

Leave a Message

Your email address will not be published. Required fields are marked *

top
Technical Bangla ©  All rights reserved.